প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে যুবলীগের দৃষ্টি ও বাক প্রতিবন্ধিদের উপহার

প্রকাশিত: ৭:০৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে যুবলীগের দৃষ্টি ও বাক প্রতিবন্ধিদের উপহার

প্রিন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে দৃষ্টি ও বাক প্রতিবন্ধিদের খাবার ও বস্ত্র উপহার দিয়েছে বাংলাদেশ যুবলীগ। আজ সোমবার দুপুরে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য কামনা করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে কেন্দ্রীয় যুবলীগ।

এতে প্রধান অতিথির হিসেবে ভার্চুয়াল বক্তব্য রাখেন-যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল। অনুষ্ঠানে প্রায় ৩ শতাধিক দৃষ্টি ও বাক প্রতিবন্ধি অংশ নেয়। এসময় প্রতিবন্ধিদের প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষ্যে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।

পরে রান্না করা খাবার, বস্ত্র ( শাড়ি, লুঙ্গি) বিতরন করেন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক। এসময় প্রধানমন্ত্রীর জীবনি ভিত্তিক যুবলীগ নির্মিত প্রামান্য চিত্র প্রদর্শনী করা হয়।
অনুষ্ঠানে ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইন উদ্দিন রানা, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজাসহ কেন্দ্রীয় ও মহানগর নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সারাজীবন মানুষের জন্য কাজ করেছে। তার কন্যা সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনাও পিতার আদর্শে মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করছেন। তিনি এদেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন। ভোট ও ভাতের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন। আমরা বার বার প্রতি বছর উদারতায় বিশ্বসেরা নেত্রী শেখ হাসিনা জন্মদিন পালন করতে চাই, মহান আল্লাহ তালার কাছে এটাই কামনা করছি। এসময় যুবলীগ নেতাকর্মীদের নিজেদের মধ্যে বিষোদগার ছেড়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আগামীর বাংলাদেশ নির্মাণে আদর্শিক রাজনীতি করার নির্দেশনা দেন শেখ পরশ।
যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা এখন শুধু বাংলাদেশের নেতা নন। উদারতা আর মানবিকতায় তিনি বিশ্বসেরা নেত্রী। আজকের দিনে আল্লাহ কাছে একটাই চাওয়া- মহান আল্লাহ যেন তাকে দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য দান করেন।